বুধবার, ফেব্রুয়ারি ১

‘কাগজের মৃত্যু’ নিয়ে কিছু আলাপ

0
Debashis Dhar

কাগজের মৃত্যু ।। দেবাশীষ ধর ।। ধরণ : কবিতা ।। প্রচ্ছদ: নির্ঝর নৈঃশব্দ্য ।। প্রকাশক: খড়িমাটি ।। মূল্য : ৫০ টাকা

কবিতাগুলো গত দু তিন বছরে বিভিন্ন সময়ে লেখা।

ধারাবাহিকভাবে আমার কখনো লেখা হয়ে ওঠে না, লেখার ভাবনা যখন আসে তখন লিখি। সেভাবেই এই কবিতাপুস্তকে এগুলো লিপিবদ্ধ হয়েছে। পাণ্ডুলিপিটা তৈরি করছিলাম অনেক দিন ধরে, শেষ পর্যন্ত অনেক লেখাই বাদ দিয়েছি। ২০১৮ সালে আমার দ্বিতীয় কবিতার বই ‘দ্বিতীয় আয়না’ বের হওয়ার পর থেকে এখন পর্যন্ত যত লিখেছি তা থেকে আমার বাছাই করা ২১ টি কবিতা নিয়ে পাণ্ডুলিপিটা সাজালাম। অনেকগুলো কবিতা থেকে এই ২১ টি কবিতার প্রতিটি কবিতাই আমার কাছে খুব ভালোবাসার, খুব কাছের, খুব আদরের, বোধের গভীরে একান্ত নিজের। এই ভালোবাসার জলে নেমে দেখুন মনে ভালোবাসা নিয়ে।

কারো কাছে প্রতিটি কবিতার মধ্যে একটা যোগসূত্র মনে হতে পারে, কারো কাছে কোনো কিছু না-ও মনে হতে পারে কিংবা মনে হতে পারে রাজনীতি কিংবা প্রেম বা যুদ্ধবিরোধী কোলাজ। হয়তো এসব কোনো কিছুই না, কবিতা পড়তে পড়তে এরকম অনেক কিছুই পাঠক তাঁর মনের মতো কোনো ঘটনা স্কেচ করাতে পারেন, কিংবা তাঁর মতো করে কল্পনায় সাজাতে পারেন যেকোনো কিছু। এক্ষেত্রে আমার চিন্তা আমার কল্পনা লেখাতে যেরকম পাঠকের কাছে তা আরেক রকম হতে পারে। আমি নিজেই জানি না আমার বিমূর্ত ভাবনায় চিন্তায় কবিতার সুর যখনই বেজেছে লিখে ফেলেছি। লেখার সময়ে এই সমস্ত অনেক কিছুই নাড়িয়ে দিয়ে গেছে। এই রাষ্ট্র, দেশ, সারাবিশ্বের মহামারী, পরিবর্তন মানুষের লড়াই— এ সব কিছুই শব্দে বিন্যস্ত হয়ে কবিতায় প্রকাশিত হয়েছে। পাঠক তার পাঠের মধ্য দিয়ে সেই স্বাদটা খুঁজে নেবে। আমি চাই পাঠক নিজের মতো করে ভাবুক কবিতার গভীরে যাক সেই অবলোকনের আনন্দে ভাসুক আর স্বাদ পেটে থাকুক। কোনো একটা নির্দিষ্ট বিষয় এখানে নেই, আমি কখনো কোনো বিশেষ বিষয়কে আনিনি, এরকম বিষয়হীন অনেক কিছুই হতে পারে। হয়তো পাঠকের কাছে কোনো বিষয় তৈরি হতে পারে। আর্ট ব্যাপারটাই এমন যে তা সমস্ত ইন্দ্রিয়লোকে একটা অতীন্দ্রিয় গতিপথ তৈরি করে দেয় মনঃলোকে। যা তাড়িয়ে নিয়ে যায় বহুদূর। আর সেখান থেকে কিছুতেই পেছনে ফিরে আসা যায় না। একবার যদি এর অমৃত অনুধাবন করে নেওয়া যায়, তবে এক ধরনের তৃপ্ত আনন্দময় যন্ত্রণা থেকে বের হওয়া যায় না।

পান্ডুলিপি তৈরি করার পর নামলিপি কি হবে— তা নিয়ে আরও ভাবনায় কাটল। কেন এরকম নাম হলো তা হয়তো এই কবিতাগুলোতেই খুঁজে পাওয়া যাবে। যাই হোক, কবিতা বরাবরই এক ধরনের ছান্দিক যাতনা বহুরকমের ব্যঞ্জনা ছুঁয়ে যায় মনে। হয়তো এর একটু হলেও দোলা লাগবে পাঠকের মনে। পাঠকের প্রতি আমার অনেক অনেক ভালোবাসা রইলো। আমার এই ২১ কবিতাক্রম পুস্তকটি আপনাদের ভালোবাসায় এবারে খড়িমাটি থেকে প্রকাশ পেয়েছে। অসাধারণ প্রচ্ছদ করেছেন কবি নির্ঝর নৈঃশব্দ্য। এবারে আপনাদের অপেক্ষায় আছে ‘কাগজের মৃত্যু’।

 

 

 

বিজ্ঞাপন
প্রিয় লেখক, ২০২১ গ্রন্থমেলায় প্রকাশিত আপনার বইটি নিয়ে লিখুন ‘আমার বই’ বিভাগে। লেখা পাঠান আমাদের ইমেইলে। সঙ্গে আপনার এবং বইয়ের পরিচিতিমূলক তথ্য এবং ছবি। লেখা পাঠানোর মেইল : editor.sreebd@gmail.com

 

শেয়ার করুন

লেখক পরিচিতি

জন্ম ৫ জানুয়ারী, ১৯৮৯ সালে চট্টগ্রামের বোয়ালখালীতে। চট্টগ্রাম কলেজ থেকে গণিতে স্নাতকোত্তর সম্পন্ন করে শিক্ষকতায় যুক্ত হয়েছেন। প্রকাশিত বই : ফসিলের কারুকাজ (২০১৬, কবিতা), দ্বিতীয় আয়না (২০১৮, কবিতা)। সম্পাদিত ছোটকাগজ : বাঙাল, ঘুণপোকা

error: আপনার আবেদন গ্রহণযোগ্য নয় ।