রবিবার, নভেম্বর ২৮

গ্যারি স্নাইডারের পাঁচটি কবিতা || ভূমিকা ও ভাষান্তর : বদরুজ্জামান আলমগীর

0

 

Gary Snaiderজগৎখ্যাত বিট জেনারেশনের গ্যারি স্নাইডারও একজন সক্রিয় রূপকার, অ্যালেন গিন্সবার্গের সঙ্গে সখ্য, বোঝাপড়া, পত্র লেনদেনের অনেক মুদ্রিত রূপও পাওয়া যায়। বহুদিন জাপানে ছিলেন, এবং প্রায় এককভাবে গ্যারি স্নাইডার বুদ্ধ দর্শনের জেন ঘরানা পশ্চিমা দুনিয়ায় রোপন ও বিস্তার করেন। প্রকৃতির জন্য গ্যারি রূপকথার প্রাণভোমরার সামিল, তাঁর নিরিখে একলা দাঁড়িয়ে থাকা পাইন গাছটি কেবল গাছগাছালি নয় একজন সন্ত মানুষ, ছোটমোটো ঝিঁঝি পোকাটি, কী আফ্রিকার জঙ্গলের দোর্দণ্ডশাসন সিংহ খালি পোকা বা প্রাণিমাত্র নয়— একেকজন বোধি প্রতিষ্ঠান। গ্যারি স্নাইডার কবি, গদ্যকার, সর্বোপরি অ্যাক্টিভিস্ট— জন্মেছিলেন ১৯৩০ সনের ৮ই মে, স্যান ফ্রেনসিসকো, ক্যালিফোর্নিয়ায়। গোটা দুনিয়ায় নিসর্গের আদিঅন্ত, তার অন্তর্গত ম্যাজিক ও নুন কবিতায়, দর্শনে, অঙ্গীকারে তুলে আনবার ক্ষেত্রে গ্যারি স্নাইডারের তুল্যে আরেকজন কবি পাওয়া প্রায় অসম্ভব।


নির্মোক


প্রকৃতির
নৈঃশব্দ্য
অন্তর্গত।

শক্তির প্রাণ
শক্তি।

নির্মোক।

পথ
যা বয়ে চলে
ঠিকানাহীন।

গন্তব্য
সহজ
প্রাণময়।

আরোগ্য,
না রেখো কথন।

গীতিকথা
অকৃত্রিম।

এ-গান প্রাণের গোড়াপত্তন।

*
Poem : Without


দাদিমাচরিত প্রকৃতি


বুড়ি দাদিমা প্রকৃতি
কোণা কামচায় গুঁজে রেখেছে
কিঞ্চিৎ দানা, ছোটোছোটো অনুমান, হাসির কণা
কোথাও দহলিজ ভরে আছে স্মৃতির টুংটাং সোনা!

গাছেদের ফোকরে এলোমেলো চিকুর,
কুড়িয়ে রেখেছে সে-যে
মোলায়েম উড়ে যাওয়া শ্বেত পাতা জমা আছে তা-ও।

ধূর্ত শিয়াল দৌড়ে পালায় নোংরা ঢিবির দিকে
তার দাঁতে ধরা তখনও শিকারের পালক,
স্রোতস্বিনীর আয়তনে একটি কথার ঝিলিক।

বিড়াল কুড়মুড় করে চিবোয় ইঁদুরের মস্তক
তোলে তৃপ্তির ঢেঁকুর, এগুতে থাকে মুষিকের লেজের পানে।

লক্ষ্মী বুড়ি দাদিমা ঠান্ডা চাঁদের আলোয়
আঁচলে ভরে যত লাকড়ি ডালপালা, ঝরা পাতা।

দাদিমা নিসর্গের শত খুচরো আধুলির সঞ্চয়ে
এবার শেষ কুড়িয়ে তোলা মণি— একআনি।

আঁৎকে ওঠো না— যদি দেখো এবার তোমার পালা!

*
Poem : Old Woman Nature


এভোকেডো


এভোকেডোর সঙ্গে ধর্মের খুব মিল।
এর কিছু অংশ একেবারে তুলতুলে পাকা
কিন্তু নষ্ট নয়, ভালো।
আবার কিছু অংশ একদম শক্ত আর ঝিমঝিমে সবুজ
কিন্তু ফেলনা নয়— কেউ কেউ এদিকটাও পছন্দ করে—
যারা অতিসিদ্ধ ডিম শখ করে খায়— তারা এভোকেডোর
শক্ত দিকে খুশি হয়।

মিহি বাকলের নিচে
কোমল— পোক্ত এভোকেডোর মাঝ বরাবর
নির্ণিমেষ গোলাকার বীজ—
ঠিক যেন তোমার অকৃত্রিম নির্মোহ স্বভাব
নির্ভেজাল আর মসৃণ,
এক নিরিবিলি বীজ— কেউ একে ফাটিয়ে আরও
ভিতরে তাকিয়ে দেখে না।

দেখতে কিন্তু বেশ লাগে—
গোলাকার, মসৃণ, আর পিচ্ছিল; মনে হবে
মাটিতে রুয়ে চারা তুলি না কেন!

কিন্তু গোলাকৃতি আর পিচ্ছিল বলে কোনদিক দিয়ে যে আঙুল গলিয়ে বাইরে ফসকে যায়!

*
Poem : Avocado


নমুনা হিসাবে


আমার ছোটো ঢ্যাঁড়ার সামনে
এক ওলন্দাজ বুড়ির ঘর ছিল
সে সারাদিন বাগানে বসে থাকতো,
আমার দরজার ওপাশটাতেই বসতো বুড়ি
তার কাজ ছিল সারাদিন বইপড়া।
একদিন বলে কী— প্রাচ্য সম্পর্কে সে জানে।
একদিন আমি দেখেওছিলাম—
তার হাতে বৌদ্ধ ভিক্ষুদের সম্পর্কে একটি বই—

শোন, তোমার কিন্তু জাপান যাবার
কোন দরকার নেই।
আদত কথাটা হচ্ছে জীবন।
ধরো তোমার বয়স কাঁচা,
যেখানে মন চায়— যাও, ঘুরে আসো,
দেখা হলো, মনও কলরব করে উঠল।
কিন্তু তোমার ধরন আমি জানি—
তুমি সারাক্ষণ বইয়ের সঙ্গে সেঁটে থাকো
তোমার বন্ধু আছে, সে আসে, রাত্রিযাপন করে,
সাইকেল চালিয়ে এদিক ওদিক যায়,
তুমি দেয়ালের পাশ ঘেঁষে
গাছের একটি চারা রুয়েছো।

আমি জল নলে একটি বালতি ভরে পানি রাখি।
এরমধ্যেই সূর্য বেশ তাতিয়ে ওঠে
চিরল চিরল সাদা পালকের একটি পাখি
এভোকেডোর উপরে বসে তারস্বরে ডাকে
বাতাসে তার সংকীর্তন ছড়ায়
এভাবেই সবখানে বোধিসত্ত্ব সবক দান করে।

*

Poem : For example


পাইন গাছের মাথা


নীল রাত্রির নিচে
ঘন আবছায়া, চাঁদের মোহে
উচ্ছ্বাসী আকাশ
পাইন গাছের শির
নিবেদনে নত;
ঝিমধরা তারার বহতা ঘোর।
সহসা বুটের মচমচ
খরগোশ তার সিঁথিপথে ছোটে
হরিণ যায় আপন গোপাটে,
আমরা তার ভেদ কী জানি!

*
Poem : Pine tree tops

শেয়ার করুন

লেখক পরিচিতি

কবি, নাট্যকার, অনুবাদক। জন্মেছেন ভাটি অঞ্চল কিশোরগঞ্জের বাজিতপুরে। পড়াশোনা বাজিতপুরে, পরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। বহুদিন দেশের বাইরে— যুক্তরাষ্ট্রের ফিলাডেলফিয়ায় থাকেন। বাংলাদেশে নাটকের দল— গল্প থিয়েটার-এর প্রতিষ্ঠাতা সদস্য; নাট্যপত্রের সম্পাদক। নানা পর্যায়ে আরও সম্পাদনা করেছেন— সমাজ ও রাজনীতি, দ্বিতীয়বার, সাংস্কৃতিক আন্দোলন, পূর্ণপথিক, মর্মের বাণী শুনি, অখণ্ডিত। প্যানসিলভেনিয়ায় কবিতার আসর-- সংবেদের বাগান-এর প্রতিষ্ঠাতা সদস্য। প্রকাশিত বই: আখ্যান নাট্য : নননপুরের মেলায় একজন কমলাসুন্দরী ও একটি বাঘ আসে। আবের পাঙখা লৈয়া। প্যারাবল : হৃদপেয়ারার সুবাস। কবিতা: পিছুটানে টলটলায়মান হাওয়াগুলির ভিতর। নদীও পাশ ফেরে যদিবা হংসী বলো। দূরত্বের সুফিয়ানা। ভাষান্তরিত কবিতা: ঢেউগুলো যমজ বোন। ছিন্নগদ্য : সঙ্গে প্রাণের খেলা। প্রকাশিতব্য নিবন্ধ : আশ্চর্য বতুয়া শাক ও কাঁচা দুধের ডিসকোর্স।

error: আপনার আবেদন গ্রহণযোগ্য নয় ।