রবিবার, নভেম্বর ২৮

আফগান কবিতা : আফগানদের রক্ত কাঁদে, বিলাপ করে : অনুবাদ: ফজল হাসান

0

আফগানদের রক্ত কাঁদে, বিলাপ করে
মূল: অ্যালাহা
অনুবাদ: ফজল হাসান


আকাশ আর ধরণী শোকার্ত
কেননা আফগানরা তাদের দিন শুরু করেছে

মৃত্যুর সতর্কতা
পাকিস্তান এবং তার সীমানার বাইরের
আত্মঘাতী বোমাহামলাকারীদের

কিছু জাতির কাছে বিমান আছে,
আছে পাখি এবং অন্যান্য আকাশমুখী প্রাণীও

কিন্তু আফগানরা বেঁচে আছে রক্তের মাঝে
যা মেঘ এবং গ্রামাঞ্চলে প্রবাহিত হয়

দেওয়ালে রক্তের ছাপ
হলঘরে রক্তের দাগ

সড়কে রক্ত
নৌকায় রক্ত

সমস্ত জায়গা জুড়ে রক্ত
বানভাসির মতো উপচে পড়ছে আফগান রক্ত

আমাদের মানুষেরা দুঃখিত,
উন্মাদও; যে তালেবানরা ক্রমশ খারাপের পথে

নিরীহ জনগণ দেখছে লাশ জ্বলছে
দেখছে, যখন তাদের ভাই ও বোনেরা মরতে থাকে

রক্ত সর্বত্র ছড়িয়ে আছে
জীবন্ত দুঃস্বপ্নের মতো

এবং কাদের রক্তে
রঞ্জিত হয়েছে জনপথ

দোকানী, ছাত্র
যুবতী নারী এবং শিশু

দশকের পর দশক হারিয়ে গেছে
যখন আফগানরা হারিয়েছে লাখ লাখ

কাদের রক্ত?

আত্মঘাতী বোমাহামলাকারীদের রক্ত
শিক্ষক, পিতামাতা, ডাক্তারদের রক্তের সঙ্গে মেশানো

যদিও তারা বন্ধু হবে না কখনও

পুরুষ, নারী এবং সব বয়সী কর্মীদের রক্ত
ইতিহাসের ধাপে চলে হত্যাযজ্ঞ

যখন আফগানরা শোকাহত
তালেবানদের আক্রমণ বেড়ে চলে

আমাদের দেশ শোকার্ত
সেই সব দুঃখী এতিমদের জন্য যাদের অশ্রু গর্জন করে

পাহাড় আর নদী কাঁদছে
সব যুবকেরা মারা যাচ্ছে তাদের জন্য

এমনকি কিছু কিছু আফগান পরিবর্তন চায় এবং চেষ্টা করে
তরুণ-তরুণীদের হত্যা আবার তীব্রতর হয়

এবং বছরের পর বছর যুদ্ধ, হিংস্রতা এবং নির্যাতন
অনেক আফগানীকে দেশ ছেড়ে যেতে বাধ্য করেছে

আফগানরা অন্য দেশে পালিয়ে গেছে
যা প্রায় অর্ধ শতাব্দী ধরে চলছে

আফগান জাতি
আইসিস ও তালেবানের লক্ষ্য

আফগানরা একটি অশুভ পরিকল্পনার শিকার
বোমাহামলাকারীরা পাকিস্তানে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত

অবশ্যই আমাদের দেশ বাধা দিবে

রুখো তালেবান
তাদের মিথ্যা, মগজধোলাই এবং মূলমন্ত্র

আসুন কাজ করি
শান্তি এবং সমৃদ্ধির

আসুন বন্ধ করি রক্ত প্রবাহ
আমাদের ভোরবেলা আবার জ্বলজ্বল করে উঠুক ।

[সূত্র: ইংরেজিতে ‘দ্য ব্লাড অব আফগানস্ ক্রাই অ্যান্ড ম্যর্ন’ কবিতার বাংলা অনুবাদ । কবিতাটি ‘আফগান উইমেন’স রাইটিং প্রজেক্ট’-এ ২০১৮ সালের ২০ এপ্রিল প্রকাশিত হয়েছে । উল্লেখ্য, কবি সম্পর্কে কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি।]

শেয়ার করুন

লেখক পরিচিতি

গল্পকার, ছড়াকার এবং অনুবাদক। লেখালেখির শুরু সত্তরের মাঝামাঝি। ঢাকার বিভিন্ন পত্র-পত্রিকার সাহিত্য পাতায়, সাপ্তাহিক, পাক্ষিক এবং অনলাইন ম্যাগাজিনে নিয়মিত প্রকাশিত হচ্ছে তার মৌলিক এবং অনুবাদ গল্প। এ পর্যন্ত প্রকাশিত হয়েছে দুটি গল্পের সংকলন, চন্দ্রপুকুর (২০০৮) ও কতটা পথ পেরোলে তবে (২০১০)। এছাড়া, তার অনুবাদে আফগানিস্তানের শ্রেষ্ঠ গল্প (২০১৩), নির্বাচিত নোবেল বিজয়ীদের সেরা গল্প (২০১৩), ইরানের শ্রেষ্ঠ গল্প (২০১৪), চীনের শ্রেষ্ঠ গল্প ও নির্বাচিত ম্যান বুকার বিজয়ীদের সেরা গল্প ইত্যাদি প্রকাশিত হয়েছে।

error: আপনার আবেদন গ্রহণযোগ্য নয় ।